A Latest Crime Report Bengali Newspaper
বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭ ইংরেজি, ১২ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বুধবার এমপি লিটনের আসনে উপ-নির্বাচন

বুধবার এমপি লিটনের আসনে উপ-নির্বাচন


আগামীকাল বুধবার এমপি লিটনের আসন গাইবান্ধা-১ সুন্দরগঞ্জে জাতীয় সংসদের উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যে সোমবার (২০ মার্চ) রাত ১২টা থেকে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হয়েছে।
এছাড়া নির্বাচনী এলাকায় মঙ্গলবার (২১ মার্চ) ১২টার পর থেকে ২২ মার্চ মধ্যরাত পর্যন্ত নির্বাচনী এলাকায় সবধরনের মোটরযান চলাচল বন্ধ থাকবে। তবে চর এলাকার জন্য নৌযান চলাচল করতে পারবে।
উল্লেখ্য, গতবছরের ৩১ ডিসেম্বর সুন্দরগঞ্জের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মনজুরুল ইসলাম লিটন উপজেলা সাহবাজ গ্রামের নিজ বাড়ীতে গুলিতে নিহত হওয়ায় আসনটি শুন্য হয়। উপ-নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৭ জন প্রার্থী। তারা হলেন, আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী গোলাম মোস্তফা আহমেদ (নৌকা), জাতীয় পার্টির প্রার্থী ব্যারিস্টার শামীম হায়দার (লাঙ্গল), জাসদের মোহাম্মদ আলী প্রামাণিক (মশাল), জাতীয় পার্টির-জেপির ওয়াহেদুজ্জামান সরকার বাদশা (সাইকেল), গণফ্রন্টের শরিফুল ইসলাম (মাছ), এনপিপির জিয়া জামান খান (আম) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মোস্তফা মোহসিন (আপেল)।
গাইবান্ধা জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ-আল-মোতাসিম জানান, উপজেলার ১৫টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় মোট ভোট কেন্দ্র ১০৯টি ও বুথ ৬৩৭টি। এরমধ্যে সবগুলো কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ। তবে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ হচ্ছে ৫৪টি কেন্দ্র এবং উপজেলার দুর্গম চরাঞ্চলে রয়েছে ১৫টি ভোট কেন্দ্র। মোট ভোটার ৩ লাখ ৩৩ হাজার ৮০৭ জন। এরমধ্যে নারী ভোটার ১ লাখ ৭০ হাজার ৮৪১ ও পুরুষ ভোটার ১ লাখ ৬২ হাজার ৯৬৬।
রংপুর অঞ্চলের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা ও এই উপ-নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা রিটার্নিং কর্মকর্তা জিএম সাহাতাব উদ্দিন জানান, ইতোমধ্যে ভোট গ্রহণের সকল সরঞ্জামসহ ভোট গ্রহণ কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা কেন্দ্রে কেন্দ্রে পৌঁছে গেছেন। এ নির্বাচনে নিয়োগকৃত ১০৯ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ৬৩৭ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ১ হাজার ২৭৪ জন পোলিং কর্মকর্তা দায়িত্ব পালন করছেন।
তবে মঙ্গলবার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা ঘুরে দেখা গেছে, প্রার্থীদের মধ্যে যেমন উৎসাহ উদ্দীপনা, ভোটারদের মধ্যে তা দেখা যায়নি। বরং তাদের মধ্যে এক ধরণের আতঙ্ক কাজ করছে।
ভোটারদের শঙ্কা প্রসঙ্গে গাইবান্ধার পুলিশ সুপার (এসপি) মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বলেন, শঙ্কার কোনো কারণ নেই। ভোটাররা যাতে নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারেন এজন্য ইতোমধ্যে যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। মোট ১৯ জন ম্যাজিস্ট্রেট, ৮ প্লাটুন বিজিবি, র‌্যাবের ১৬টি ইউনিট, ৪ হাজার পুলিশ ও আনসার ভোটের দিন পালন দায়িত্ব করতে সুন্দরগঞ্জে অবস্থান করছেন।

 

সিডর/মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০১৭ ইংরেজি