A Latest Crime Report Bengali Newspaper
রবিবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৭ ইংরেজি, ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বুবলী আমার স্বামীর জন্য পাগল : অপু

apu_bubli20170413183723


ঢালিউড কুইন অপু বিশ্বাস মাঝে দীর্ঘদিন অন্তরালে চলে যাওয়ায় শাকিব খানের বিপরীতে জুটি বেঁধে অভিনয় করছেন বুবলী। অপু দেশে আসার পর গত ১৮ মার্চ বুবলী তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে শাকিব খানের সঙ্গে একটি গ্রুপ ছবি পোস্ট করে ক্যাপশনে লেখেন ‘ফ্যামিলি টাইম’। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বুবলীকে ফোন করে তিরস্কার করেন অপু। সম্প্রতি শাকিবের সঙ্গে বিয়ে ও সন্তানের কথা প্রকাশ করেন অপু। বিষয়টি বর্তমানে টক অব দ্য টাউন। বুবলী এ প্রসঙ্গে অপুকে উদ্দেশ্য করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন। আজ ১৩ এপ্রিল অপু বিশ্বাসের সঙ্গে এ প্রতিবেদকের আলাপকালে বুবলীকে ‘পাগল’ বলে অভিহিত করেন অপু। এ সময় অপু বিশ্বাস  বলেন, ‘আমার স্বামীর পরিচয়, তিনি একজন হিরো এবং স্টার। তার প্রফেশন লাইফে ফ্যামিলি হস্তক্ষেপ করবে এটা কখনোই আমি চাইনি। এখনো চাচ্ছি না। বুবলী কেন, শাকিব তো অনেক অভিনেত্রীর সঙ্গে কাজ করেছে। বুবলী কোনো সমস্যা নয়। কিন্তু মেয়েটা সব সময় আমাদের পারিবারিক বিষয়ে ঢুকে যায়। সমস্যাটা এখানে।’ তিনি আরো বলেন, ‘আমরা স্বামী-স্ত্রী, সন্তান নিয়ে যখন কথা বলছি তখন তার স্ট্যাটাস দেয়ার কি দরকার ছিল? বুবলী যদি আমাদের সাথে থেকে স্টার হতে চায় হোক না। এমন সময় সামনে আসতেই পারে যেদিন আমি, শাকিব কাজ করবো সেও আমাদের সঙ্গে কাজ করবে।’ ‘বুবলী সব সময় আমাদের পারিবারিক বিষয়ে নাক গলিয়ে যাচ্ছে। এটা হাস্যকর। আমার কাছে মনে হয় মেয়েটার মাথা ঠিক-ঠাক নেই। একবার আমি তাকে ওয়ার্নিংও দিয়েছি। ও মনে হয় ভুলে গেছে আমি শাকিবের স্ত্রী।’ বলেন অপু। এ অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘শাকিব কিন্তু স্বীকার করেছেন সে আমার কথা মেনেই কাজ করছেন। এখন উপায় নেই কারণ আমি ফ্যাট। আর বাচ্চাটা অনেক ছোট। তাই বাধ্য হয়ে শাকিবের অন্যদের সঙ্গে কাজ করতে হচ্ছে। এতে আমার আপত্তি নেই। থাকার কথাও না। আমি শুধু বুবলীকে একটা কথা বলতে চাই, সে যেন ভবিষ্যতে আমাদের স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে কোনো রকম নাক না গলায়।’ তিনি বলেন, ‘বুবলী পাগল, আমার স্বামীর জন্য পাগল, এজন্য আমি অনেক খুশি। শাহরুখ খানের স্ত্রী যেমন খুশি, তার স্বামীর জন্য অনেকে পাগল, আমি তেমনি খুশি আমার স্বামীর জন্য বুবলী পাগল। আমি গর্ব বোধ করি, আমার স্বামী একজন সুপারস্টার। তার জন্য মেয়েরা পাগল হবে এতেই আমি খুশি।’ তিনি আরো বলেন, ‘শাকিব অনেক ভালো মনের মানুষ। দীর্ঘ নয় বছর আমাকে অনেক সম্মানের সাথে রেখেছেন এবং স্ত্রীর মর্যাদা দিয়েছেন। আমি যা বলেছি তা শুনেছেন। আর আমি যেটা করেছি সেটা আমার সন্তানের নিরাপত্তার প্রয়োজনে করেছি। বাচ্চা বড় হয়ে যেন না জানে, আমরা লুকিয়ে আছি। এজন্যই আমার বলা। শাকিবকে টার্গেট করে বা তার ক্ষতি করে কিছু করার ইচ্ছে ছিল না। শাকিব তো আমারই একটা অংশ। সে ভালো থাকুক। আল্লাহ তাকে হেদায়েত দান করুন। তাকে যেন সুস্থ বুদ্ধি ও সুস্থ জ্ঞান দেন, এই দোয়া করি।’ গত ১০ এপ্রিল সাংবাদমাধ্যমে শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের বিয়ে ও তাদের সন্তানের খবর প্রকাশের পর শুরু হয় আলোচনা। এরপরই শাকিব খান সন্তান আব্রাহাম খান জয়কে মেনে নিলেও স্ত্রী হিসেবে অপুকে মেনে নিবেন না বলে জানান। তিনি তখন বলেছিলেন, অপুকে বিয়েই করেননি। বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার মুখে পরেন শাকিব। দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে। এরপর গত ১১ এপ্রিল টেলিভিশন লাইভ অনুষ্ঠানে শাকিব খান জানান, তিনি তার সন্তানের পাশাপাশি স্ত্রী অপুকেও মেনে নিয়েছেন এবং তাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন।

 

সিডর/শুক্রবার, ১৪ এপ্রিল ২০১৭ ইংরেজি